সুন্দর , সহজ-সরল জীবন গঠনে মহানবীর (সঃ) ২৫ টি সোনালী বাণী ।

এক ব্যক্তির ২৫টি প্রশ্ন এবং রাসুলের (সাঃ) উত্তর ।

প্রশ্ন – ১) –
আমি ধনী হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , অল্পতুষ্টি অবলম্বন কর , ধনী হয়ে যাবে ।

প্রশ্ন – ২) –
আমি সবার থেকে বড় ধর্মীয় আলেম (ইসলামী জ্ঞানের অধিকারী) হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , তাক্বওয়া (আল্লাহ ভীরুতা) অবলম্বন কর , আলেম হয়ে যাবে ।

প্রশ্ন – ৩) –
সর্বোচ্চ মানের সম্মানীত ব্যক্তি হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , সৃষ্টির কাছে চাওয়া বন্ধ কর ; সম্মানীয় হয়ে যাবে ।

প্রশ্ন ৪) – অত্যন্ত ভাল মানুষ হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , জাতি ধর্ম বর্ন নির্বিশেষে সকল মানুষের উপকার কর ।

প্রশ্ন – ৫) –
সর্বোচ্চ মানের ন্যায়পরায়ন ব্যক্তি হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , যা নিজের জন্য পছন্দ কর তা অন্যের জন্যেও পছন্দ কর ।

প্রশ্ন – ৬) –
সর্বসেরা শক্তিশালী ব্যক্তি হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , মহান আল্লাহর উপর পরিপূর্ন ভরসা কর ।

প্রশ্ন – ৭) –
আল্লাহর দরবারে বিশেষ মর্যাদার অধিকারী হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , বেশী বেশী আল্লাহকে স্মরন কর ।

প্রশ্ন – ৮) –
রিযিকের প্রশস্ততা চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , সর্বদা অযু অবস্থায় থাকো ।

প্রশ্ন – ৯) –
মহান আল্লাহর কাছে সমস্ত দোয়া কবুলের আশা করি !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , হারাম খাবার হতে বিরত থাক ।

প্রশ্ন – ১০) –
ঈমানে পূর্ণতা কামনা করি !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , সৎ এবং চরিত্রবান হও ৷

প্রশ্ন – ১১) –
কেয়ামতের দিন আল্লাহর সাথে গুনাহমুক্ত অবস্থায় সাক্ষাৎ করতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , জানাবত তথা গোসল ফরজ হওয়ার সাথে সাথে গোসল করে নাও ।

প্রশ্ন – ১২) –
গুনাহ কিভাবে কমে যাবে ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , বেশী বেশী ইস্তেগফার (আল্লাহর নিকট কৃত গুনাহের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা) কর ।

প্রশ্ন – ১৩) –
কেয়ামত দিবসে উজ্জল আলোতে থাকতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , সর্বপ্রকার জুলুম করা ছেড়ে দাও ।

প্রশ্ন – ১৪) –
মহান আল্লাহর অনুগ্রহ ও দয়া কামনা করি !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , আল্লাহর বান্দাদের উপর দয়া-অনুগ্রহ কর ।

প্রশ্ন – ১৫) –
আমি চাই আল্লাহ আমার সমস্ত দোষ-ত্রুটি গোপন রাখবেন !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , অন্যের দোষ-ত্রুটি গোপন রাখো ।

প্রশ্ন – ১৬) –
অপমানিত হওয়া থেকে রক্ষা পেতে চাই ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , যিনা (ব্যভিচার) থেকে বেঁচে থাকো ।

প্রশ্ন – ১৭) –
আল্লাহ এবং তাঁর রাসুলের (সাঃ) নিকট প্রিয় হতে চাই ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , যা আল্লাহ এবং তাঁর রাসুলের (সাঃ) নিকট অধিক পছন্দনীয় তা নিজের জন্য প্রিয় বানিয়ে নাও ।

প্রশ্ন – ১৮ ) –
মহান আল্লাহর একান্ত বাধ্যগত অনুগত হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , ফরজ সমূহকে গুরুত্বের সহিত আদায় কর ।

প্রশ্ন – ১৯) –
ইহসান সম্পাদনকারী হতে চাই !
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , এমনভাবে আল্লাহর এবাদত কর যেন তুমি আল্লাহকে দেখছ অথবা আল্লাহ তোমাকে দেখছেন ।

প্রশ্ন – ২০) –
ইয়া রাসুলাল্লাহ (সাঃ) ! কোন কর্ম গুনাহ মাফে সহায়তা করবে ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন ,
ক) কান্না । (আল্লাহর নিকট কৃত গুনাহের জন্য)
খ) বিনয় ।
গ) অসুস্থতা ।

প্রশ্ন – ২১) –
কোন জিনিষ দোযখের ভয়াবহ আগুনকে শীতল করবে ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , দুনিয়ার বালা-মুছিবত সমূহ ।

প্রশ্ন – ২২) –
কোন কর্ম আল্লাহর ভয়াবহ ক্রোধ ঠান্ডা করবে ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , গোপন দান এবং আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা ।

প্রশ্ন – ২৩) –
সবচাইতে মহানিকৃষ্ট কি ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , দুশ্চরিত্র এবং কৃপনতা ।

প্রশ্ন – ২৪) –
সবচাইতে সর্ব উৎকৃষ্ট কি ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , সচ্চরিত্র , বিনয় এবং ধৈর্য্য ধারন করা ।

প্রশ্ন – ২৫) –
আল্লাহর ক্রোধ থেকে বাঁচার উপায় কি ?
উত্তর –
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বললেন , মানুষের উপর রাগান্বিত হওয়া পরিহার কর ।

সর্বশক্তিমান আল্লাহ আমাদের সবাইকে উল্লেখিত কর্মগুলি সুষ্ঠভাবে সম্পাদন করার জন্য শক্তি ও সামর্থ্য প্রদান করুন ।
ঈলাহী আমিন ।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + 1 =